Sponsored

EU referendum: ট্রেডারদের জন্য সতর্কবার্তা

আগামিকাল ২৩ জুন বৃহস্পতিবার ব্রিটেনের ইউরোজোন থেকে বেড়িয়ে আসার বহুল প্রতীক্ষিত ভোট অনুষ্ঠিত হবে । কি হতে যাচ্ছে কেউ জানেনা।  ট্রেডাররা ভুগছেন অনিশ্চয়তায়।  এখন আগামিকালের ভোটের ওপরই নির্ভর করছে সবকিছু।download

ভোটে ব্রিটেন ইউরোজোন ত্যাগের সিদ্ধান্ত নিলে তাতে ব্রিটেনের ওপর ভয়ংকর প্রভাব পড়বে বলে ধারনা করছেন বিশেষজ্ঞরা। GBP/USD ১.৩৮ এও নেমে আসতে পারে বলে ধারনা করছেন অনেকে। তবে এতে যে শুধু পাউন্ড ক্ষতিগ্রস্থ হবে তা নয়, প্রভাব পড়বে ইউরোর ওপরও। ব্রেক্সিট হলে সবচেয়ে বেশি প্রভাব পড়বে GBP/USD এবং GBP/JPY পেয়ারে। এছাড়াও EUR/JPY এবং EUR/USD এর ওপরও তাৎপর্যপূর্ণ প্রভাব পড়তে পারে বলেই আশংকা করছেন বিশ্লেষকরা।

এ অবস্থায় আনপ্রেডিক্টেবল মুভমেন্টের আশংকায় বেশিরভাগ ট্রেডার এই সপ্তাহে ট্রেডিং বন্ধ রেখেছেন। এছাড়াও ভোটের সময় বড় ধরনের হঠাৎ মুভমেন্ট থেকে ট্রেডারদের রক্ষা করার জন্য বেশিরভাগ ব্রোকারই এই সময়ে তাদের মার্জিন রিকোয়ারমেন্ট বৃদ্ধি এবং লিভারেজ কমিয়ে ২৫:১ করেছে। অনেক ব্রোকার এসএমএস পাঠিয়ে ট্রেডারদের সতর্ক করছে।

যাই হোক, ট্রেডারদের জন্য সতর্ক বার্তা হচ্ছে,  আগামীকাল ২৩ তারিখ মার্কেটে অসাভাবিক হতে পারে, যেমন: স্লিপেজ, প্রাইস গ্যাপ, স্পেড বেড়ে যাওয়া ইত্যাদি। এসময় আপনার ট্রেডে SL/TP দেয়া খাকলেও স্লিপেজ/প্রাইস গ্যাপের কারনে তা ভিন্ন প্রাইসে ক্লোজ হতে পারে। এতে আপনি অনেক বেশি লসের শিকার হতে পারেন। হেজ করা একাউন্টেও স্প্রেড বেড়ে যাওয়া এবং লেভারেজ কমিয়ে দেয়ার কারনে বড় ধরনের লস হয়ে যেতে পারে। সুতরাং সবচেয়ে ভাল আজ এবং আগামীকাল ট্রেড না করা।