ইলিয়ট তরঙ্গের ইন্ডিকেটরসমূহ

ইলিয়ট তরঙ্গের ইন্ডিকেটরসমূহ

ডাউনলোডঃ Elliott_Waves.mq4
ডাউনলোডঃ FX5_NeelyElliotWave_v1.2.mq4
ডাউনলোডঃ IBFX-Waves.ex4
ডাউনলোডঃ Elliott_Wave_Oscillator.mq4
ডাউনলোডঃ 3_Level_ZZ_Semafor.mq4
ডাউনলোডঃ MTF_Elliott.mq4

আমরা প্রতিটি ইন্ডিকেটর নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো।
আমাদের সাথেই থাকুন।

ইলিয়ট তরঙ্গের ধাপসমূহ

ইম্পালসিভ তরঙ্গের ধাপসমূহ

১. ক্রমবর্ধমান তরঙ্গ- এই তরঙ্গসমূহ স্পষ্টভাবে দেখা যায়। এরা ছোট ছোট উপ-তরঙ্গ দ্বারা গঠিত যা সহজেই দৃশ্যমান।

bfs7
২. ত্রিভুজাকার- ইহা ৫ম তরঙ্গে দেখা যায়। ৫ম তরঙ্গটি এমনিতেই দূর্বল থাকে তাই এই তরঙ্গে উপ-তরঙ্গ দ্বারা গঠিত ত্রিভুজাকার দেখা যায়।
bfs8
৩. ব্যর্থ অপূর্ণ ৫ম তরঙ্গ- ইহা ৫ম তরঙ্গে পাওয়া যায় যেখানে এটা খুব দূর্বল থাকে এবং ৩য় তরঙ্গকে পার করতে পারে না। ফলে জোড়া উচ্চ মূল্যের মান গঠন হয় (উপরোক্ত চিত্রের দ্বিতীয় অংশের মত)।

কারেক্টিভ তরঙ্গের ধাপসমূহ

কারেক্টিভ তরঙ্গের গঠন জটিল প্রকৃতির হয়। এদের ছয়টি প্রধান ভাগে ভাগ করা যেতে পারেঃ

bfs9
আঁকাবাঁকাঃ
এই কখগ ধাপ ৫-৩-৫ পর্যায় মেনে গঠিত হয় যেখানে খ তরঙ্গ ক তরঙ্গের বেশি নয় এবং গ তরঙ্গ ক তরঙ্গকেও ছাড়িয়ে যায়।

সমানঃ
এই কখগ ধাপ ৩-৩-৫ পর্যায় মেনে গঠিত হয় যেখানে তিনটি তরঙ্গই সমান দৈর্ঘ্যের।

অনিয়মিতঃ
এই কখগ ধাপ ৩-৩-৫ পর্যায় মেনে গঠিত হয় যেখানে খ তরঙ্গ ক তরঙ্গকে ছাড়িয়ে যায় এবং গ তরঙ্গ ক তরঙ্গের কাছে (বা নিচে) শেষ হয়।

অনুভূমিক ত্রিভুজঃ
৫-তরঙ্গের ত্রিভুজ আকৃতি ৩-৩-৩-৩-৩ এর ছোট তরঙ্গ মিলে গঠিত হয়। সাধারণত এই ত্রিভুজগুলো ৪র্থ ইম্পালসিভ তরঙ্গে গঠিত হয়।

bfs10
দ্বিগুণ তিনঃ (Double Three)
এই কখগ-X-কখগ ধাপ যেকোন দুইটি ধাপে (আঁকাবাঁকা, সমান, অনিয়মিত অথবা ত্রিভুজ) গঠিত হয় এবং X তরঙ্গ দ্বারা সংযুক্ত থাকে।

দ্বিগুণ তিন তরঙ্গের উদাহরণঃ

bfs11

ছবি সম্পর্কেঃ

উপরোক্ত ছবিতে বড় তরঙ্গকে কখগ দ্বারা নির্দেশ করা হয়েছে। প্রতিটি বড় তরঙ্গই ছোট ছোট তরঙ্গ দ্বারা গঠিত। এই ছোট বা মধ্যম তরঙ্গকে অআই দ্বারা চিহ্নিত করতে হয়।

তিনগুন তিনঃ (Triple Three)
এই কখগ-X-কখগ-X-কখগ ধাপ যেকোন তিনটি ধাপে (আঁকাবাঁকা, সমান, অনিয়মিত অথবা ত্রিভুজ) গঠিত হয় এবং দুইটি X তরঙ্গ দ্বারা সংযুক্ত থাকে।

তিনগুন তিন তরঙ্গের উদাহরণঃ

bfs12
দ্বিগুণ তিন এবং তিনগুন তিন খুবই জটিল কারেক্টিভ ধাপ, তাই সঠিকভাবে গণনা করতে না পারলেও সাহস হারাবেন না। যদি সেই মুহূর্তে তরঙ্গগুলো ঠিক মত ধরতে না পারেন তবে অন্যান্য টেকনিক্যাল পর্যবেক্ষণের (বা ইন্ডিকেটরের) সাহায্য নিন।

সবসময় ইলিয়ট তরঙ্গের ধাপসমূহের ব্যাপারে পরিষ্কারভাবে পর্যবেক্ষণ করুন। কিন্তু যদি কখন আটকে যান বা ধাপসমূহ ঠিকভাবে না আঁকা যায় তবে অন্যান্য পর্যবেক্ষণ পদ্ধতি যেমন ইন্ডিকেটর, ফিবোনাক্কি ইত্যাদি ব্যবহার করে সিদ্ধান্ত নিন।

বিশেষভাবে লক্ষণীয়ঃ সকল কখগ কারেকশনে (আঁকাবাঁকা, সমান, অনিয়মিত, দ্বিগুণ তিন, তিনগুন তিন) গ তরঙ্গ টি ৫ তরঙ্গের ধাপে গঠিত। এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ তথ্য। গ তরঙ্গের পর নতুন ইম্পালসিভ তরঙ্গে ট্রেডের/বিনিয়োগের পরিকল্পনা করার পূর্বে এটা ভাল করে দেখে নিতে হবে।

ইলিয়ট তরঙ্গের নিয়মসমূহ

ইলিয়ট তরঙ্গ গণনার ৩টি প্রধান নিয়ম

  1. তরঙ্গ ২ তরঙ্গ ১ এর শুরুর পর্যায়কে ভাঙ্গে নিচে যাবে না।
  2. তরঙ্গ ৩ তরঙ্গ ১, ৩ এবং ৫ এর মধ্যে সবচেয়ে ছোট হবে না।
  3. তরঙ্গ ৪ তরঙ্গ ১ এর উপরে পৌঁছাবে না।

bfs5

 

এই ৩টি কঠোর নিয়ম যা পরিবর্তনযোগ্য নয়। বাকি নিয়মগুলো এবং কিছু সংখ্যক পদ্ধতির পরিবর্তন বা খানিকটা বদলানো যায়, যা আমাদের ব্যাখ্যা করে যে মার্কেট সম্পূর্ণ অনুমানযোগ্য নয়।

 পরিবর্তনের নিয়ম

 তরঙ্গ ২ এবং ৪ হবে ইম্পালসিভ তরঙ্গ যা ভিন্ন গঠনের হবে। যদি তরঙ্গ ২ সাধারণ কখগ গঠনের (আঁকাবাঁকা) হয় তবে ৪র্থ তরঙ্গটি হবে জটিল তরঙ্গ (ত্রিভুজ, দ্বিগুণ, তিনগুন প্রভৃতি)
bfs6
অনেক বছর ধরে ইলিয়ট অনুসারীরা চেষ্টা করে এর নিয়ম এবং তরঙ্গের উন্নত ব্যাখ্যা উন্মোচন করেছেন। যার ফলে আজ আমরা ইলিয়ট তরঙ্গের নিয়ম এবং ব্যবহারবিধি সম্পর্কে শত শত নতুন তথ্য পাচ্ছি যাতে আমরা মূল্যের আচরণবিধির প্রতিটি ধাপ ধরতে পারি।
নিচে একটি বহু বিস্তারিত ব্যবহারবিধি দেওয়া হলঃ
কিন্তু এটা কি সম্ভব যে প্রতিটি পরিবর্তনকেই নিয়মের মধ্যে আনা? এই শ্রেণী বিভাগ পাঠ করে কি লাভ হবে অথবা এটা একটা সাধারণ বর্ণনা যাতে মার্কেটের সম্ভাবনা নিয়ে বলা হয়েছে, যা আমাদের পড়ার প্রয়োজন আছে বা নাই। এই সিদ্ধান্ত সম্পূর্ণই আপনার নিজের।
শুধু এটা মনে রাখবেন যে ইলিয়ট তরঙ্গ ব্যবহার হচ্ছে ঠিক হওয়া বা প্রতিটি সময়ে পরবর্তী পরিবর্তনটি জানাই নয়। ইলিয়টিশিয়ানরা ভুল করে এবং তারা অনেক ভুল করে, এমনকি অনেক অভিজ্ঞ বিনিয়োগকারী যেমন রর্বাট প্রিচার ও প্রতিবার সঠিক নন*. যা গুরুত্বপূর্ণ তা হল আপনার ভুল থেকে শিক্ষা, যা আপনাকে পরবর্তী বিনিয়োগে/ট্রেডে লাভ আনতে সহায়তা করবে। আর ফরেক্স বিনিয়োগকারী হিসেবে আমাদের ক্ষতি/লস কে স্বীকার করেই সামনে এগিয়ে যেতে হবে।

ইলিয়ট তরঙ্গের মূল ভিত্তিসমূহ

ইলিয়ট তরঙ্গের মূল ভিত্তিসমূহ

প্রতিটি পূর্ণ ইলিয়ট ওয়েব ৫টি ইম্পালসিভ তরঙ্গ দ্বারা গঠিত যা মূল ট্রেন্ড অনুসরণকারী ৩টি কারেক্টিভ তরঙ্গের দিকনির্দেশ করে। যাদের বলা হয় “৫-৩ পথ” ।
এই ৫-৩ গতিপথ যে কোন সময় ছকের ( M1, M5, M15 থেকে W1, M1 পর্যন্ত সব) জন্য সত্য।

bfs1

ইহা একটি উচ্চমুখী ট্রেন্ড যেখানেঃ

১-২-৩-৪-৫ হচ্ছে ইম্পালসিভ পথ, যেখানে তরঙ্গ ১-৩-৫ হচ্ছে ইম্পালসিভ তরঙ্গ এবং ২-৪ হচ্ছে কারেক্টিভ তরঙ্গ।

ক-খ-গ হচ্ছে কারেক্টিভ পথ, যেখানে ক-খ হচ্ছে ইম্পালসিভ তরঙ্গ এবং গ হচ্ছে কারেক্টিভ তরঙ্গ।

কিন্তু, এসব ইম্পালসিভ অথবা কারেক্টিভ বিষয়ের মানে কি ?
এগুলো বুঝতে হলে আমাদের যেতে হবে লেনদেনকারীদের আচরণ বিষয়ক বিবরণীতে এবং কিভাবে এগুলো ইলিয়ট অনুসারে কাজ করে।

তরঙ্গ ১ – ক্রেতাদের প্রথম দলের ইম্পালসিভ আশা প্রকাশ করে। তারা কেনার একটি ভাল কারণ খুজে পায় (ফান্ডামেন্টাল এবং টেকনিক্যাল কারণ).  আর তাই তারা মার্কেটকে উপরে উঠতে চাপ প্রয়োগ করে।

তরঙ্গ ২ – ইম্পালস তরঙ্গটি পরিবর্তিত হয়ে যায় কারণ আসল ক্রেতারা তাদের লেনদেন লাভ নিয়ে বন্ধ করে দেয়। যখন অন্য বিনিয়োগকারীরা, যারা এই সুযোগ নিতে পারেনি তারা নতুন সুযোগের আপেক্ষায় বাইরে থেকে পর্যবেক্ষণ করে।

তরঙ্গ ৩ – সাধারণত সবচেয়ে লম্বা এবং শক্তিশালী তরঙ্গ। প্রত্যেক বিনিয়োগকারী যারা কিনতে চায় তারা ( যারা তরঙ্গ ১ এ সুযোগ হারিয়েছে এবং যারা সুযোগ পায়নি ) এখান থেকে কিনতে থাকে। আরও যোগ হয় তারা যারা তরঙ্গ ৩ এর মাঝে এসে সন্তুষ্ট হয় যে তরঙ্গটি উচ্চমুখী। সবকিছু মিলে একটি বড় বেগবৃদ্ধির মাধ্যমে এটি মূল ট্রেন্ডে পরিণত হয়।

তরঙ্গ ৪ – আগে হোক বা পরে হোক, এখন লাভ তুলে নেওয়ার সময়, এই ইম্পালসিভ পথ পুনরায় পরিবর্তিত হতে শুরু করে। যাইহোক, এই অগভীর পরিবর্তনের মাধ্যমে বোঝা যায় যে আরও ক্রেতা রয়েছে যারা এই ট্রেন্ডে যোগ দিতে চায়।

তরঙ্গ ৫ – তাই পুনরায় ট্রেন্ড উচ্চমুখী হওয়া শুরু করে, কিন্তু মার্কেট ক্রয়াধিক ( অত্যাধিক ক্রয়) হয়েছে এবং ইহা নিশ্চিত যে এখন একটি বিপরীত পরিবর্তন হবে। তরঙ্গ ৫ এর শেষ বোঝা যায় বিক্রয়াধিক ( অত্যাধিক বিক্রয় ) মার্কেট ( উচ্চমুখী ট্রেন্ডের মধ্যে ) এবং ডাইভারজেন্স দ্বারা।
ডাইভারজেন্স – এটি বলতে বুঝায় যে, মার্কেট উচ্চমুখী ট্রেন্ডে ক্রয়াধিক দেখা যাচ্ছে কিন্তু RSI ইন্ডিকেটরে বিপরীত দিক নির্দেশিত বিক্রয়াধিক দেখাচ্ছে। এতে বুঝা যায় যে উচ্চমুখী মার্কেট নিম্নগামী হবে। ( বিপরীতক্রমে নিম্নমুখী মার্কেটের ক্ষেত্রে উচ্চগামী )

তরঙ্গ ক, খ, গ – এই তরঙ্গগুলো তৈরী হয় প্রধান ট্রেন্ডের বিপরীত তরঙ্গের ট্রেন্ড পদ্ধতি হিসেবে। এই সময় নতুন ট্রেন্ড গঠিত হতে পারে আবার নাও হতে পারে এবং নতুন ১-২-৩-৪-৫-ক-খ-গ ক্রমানুসারে তরঙ্গগুলো শুরু হতে পারে।
ইলিয়ট তরঙ্গ এবং চক্রের প্রকারভেদঃ


ইহা খুব ভাল হতো যদি এই ৫-৩ তরঙ্গগুলো পেতাম এবং বিনিয়োগ করতাম, কিন্তু ব্যবহারিক ক্ষেত্রে আমরা যখন মূল্য তালিকার দিকে তাকাই তখন এই রকম মসৃণ ৫-৩ তরঙ্গ পাওয়া যায় না, তার পরিবর্তে দেখা যায় গোলক ধাঁধার উপর নিচ পথের মত। এখন আপনি কি করবেন?
ইলিয়ট তরঙ্গ তত্ত্ব বলে যে প্রত্যেক তরঙ্গই ছোট ছোট তরঙ্গ দ্ধারা গঠিত।

bfs2

যদি প্রত্যেক তরঙ্গই ছোট ছোট তরঙ্গের শ্রেণী দ্বারা গঠিত হয় তাহলে ছবিটি দেখতে এরকমঃ
bfs3

ইলিয়ট তরঙ্গের চক্রগুলো

ইলিয়ট তরঙ্গ অনুসারে একটি বড় তরঙ্গ তৈরী হয় প্রতিটি পূর্ণ ১-২-৩-৪-৫-ক-খ-গ তরঙ্গের সমাবেশে ( বড় তরঙ্গের একটি চক্র ) ।
bfs4

নিচে ইলিয়ট তরঙ্গ চক্রের একটি পরিচিত তালিকা এবং এদের বিভিন্ন প্রকারের নাম দেওয়া হলোঃ
তরঙ্গের প্রকার ৫ এর ট্রেন্ড ৩ এর বিপরীত ট্রেন্ড সময়ের পরিধি
সর্ব্বোচ্চ বৃহৎচক্র [[[[[[[[ [[ I] [II] [III] [IV] [V] [অ] [আ] [ই] শতাব্দী, যুগ
বৃহৎচক্র ( I) (II) (III) (IV) (V) (অ) (আ) (ই) যুগ, বাৎসরিক
চক্র I II III IV V অ আ ই বাৎসরিক, ত্রিমাসিক, মাসিক
প্রাথমিক [ ১] [২] [৩] [৪] [৫] [ক] [খ] [গ] ত্রিমাসিক, মাসিক, সপ্তাহিক, প্রতিদিন
মাধ্যমিক ( ১) (২) (৩) (৪) (৫) (ক) (খ) (গ) মাসিক, সপ্তাহিক, প্রতিদিন
গৌণ ১ ২ ৩ ৪ ৫ ক খ গ মাসিক, সপ্তাহিক, প্রতিদিন, ২৪০ মিনিট
মিনিট [ i] [ii] [iii] [iv] [v] [অ] [আ] [ই] সপ্তাহিক,প্রতিদিন,২৪০-৬০ মিনিট
মিনিটি ( i) (ii) (iii) (iv) (v) (অ) (আ) (ই) প্রতিদিন, ২৪০-৬০ মিনিট
উপমিনিটি i ii iii iv v অ আ ই ২৪০-৬০ মিনিট এবং আরও কম

টীকাঃ অনলাইন ট্রেডিং পদ্ধতিতে তৃতীয় বন্ধনীর পরিবর্তে গোলক চিহ্নও ব্যবহার করা হয়।

ইলিয়ট তরঙ্গ তত্ত্ব

আজ আপনাদের যে তত্ত্বের সাথে পরিচয় করিয়ে দেব তা হয়তোঅনেকেরই পরিচিত। তত্ত্বটি হচ্ছে ইলিয়ট তরঙ্গ তত্ত্ব ( Elliott Waves Theory) . আমরা এই তত্ত্বটি ব্যবহার করেছি এবং এর সাফল্য চমৎকার। এই লেখা লিখতে আমরা বিভিন্ন বই, ওয়েবসাইট, ব্লগ প্রভৃতির সাহায্য নিয়েছি এবং অনুবাদ করেছি। তাই বিভিন্ন ইংরেজি লেখার সাথে আমাদের লেখার মিল পেতে পারেন। আমরা একের পর এক ইলিয়ট তরঙ্গ তত্ত্বের পূর্ণাঙ্গ ব্যবহার নিয়ে আলোচনা করবো। আশা করি ধৈর্য্য নিয়ে পড়বেন এবং ব্যবহার করে লাভবান হবেন। ব্যবহারকারীগণ কোন সমস্যায় পড়লে আমাদের জানাবেন, আমরা তার সমাধান করবো।

অভিজ্ঞ ট্রেডারদের প্রতি অনুরোধ রইলো, আপনারা আপনাদের সুপরামর্শ দিয়ে আমাদের সহায়তা করবেন।

ইলিয়ট তরঙ্গ তত্ত্ব

ইলিয়ট তরঙ্গ হচ্ছে অল্প কিছু শিক্ষার মধ্যে একটি যা বলতে সক্ষম যে মার্কেট এখন কোথায় আছে, মার্কেট পরবর্তীতে কোথায় যেতে পারে এবং লেনদেনকারীদের জন্য কি সুযোগ রয়েছে।

যাই হোক, এটা অনেক লেনদেনকারীর কাছে গোপন নয় যে ইলিয়ট তরঙ্গ তত্ত্ব বোঝা, ব্যবহার করা বা কারও পূর্বাবাস অনুসরণ করার চেয়ে একটি কঠিন শিক্ষা।

Bdforexschool-ellitot wave

 

ইলিয়ট তরঙ্গের ইতিহাস

আমাদের ইলিয়ট তরঙ্গের সাথে পরিচয় করিয়েছেন রালফ নিলসন ইলিয়ট। ১৯৩০ সালে শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে।
তত্ত্বটির মূল একক ভিত্তি হচ্ছে লেনদেনকারীদের আচরণ যা মার্কেট আচরণের পূর্বনির্ধারিত ফলাফল ঘটতে দেয় না।
লেনদেনকারীদের আচরণ => মার্কেট আচরণ
ইলিয়টিরা, যাদের মধ্যে আছে অনেক ব্যাংক এবং বিনিয়োগ প্রতিষ্ঠানের বড় টেকনিকাল কৌশলী, তারা ইলিয়ট তরঙ্গ তত্ত্ব ব্যবহার করেন লেনদেনকারীদের বিনিয়োগের আচরণ বোঝার জন্য এবং সেই অনুযায়ী পূর্বাবাস দিয়ে মার্কেট আচরণ প্রকাশ করেন।

ইলিয়ট তরঙ্গের উপর পক্ষে- বিপক্ষে মতামত

বিপক্ষে

১. ইলিয়ট তরঙ্গের সম্ভাবনা বিশাল। যদি কিছু ইলিয়টিয়ান কে ইলিয়ট তরঙ্গ একই চার্টে বের করতে দেওয়া হয় তবে তারা বিভিন্ন তরঙ্গ বের করে দেখাবেন।

২. ইলিয়ট তরঙ্গের কঠিন কিছু ধাপ এবং নিয়ম রয়েছে।

৩. ইলিয়ট তরঙ্গের শুধু ৩টি কঠিন নিয়ম রয়েছে যা অভঙ্গুর। বাকি নিয়মগুলোর পরিবর্তন, ব্যতিক্রম এবং অকার্যকর হওয়া সম্ভব, যা একে অসীম সম্ভবনার বিশ্বে পরিণত করেছে।

পক্ষে

১. সবসময় সঠিক তরঙ্গ গণনা করে বের করায় ইলিয়ট তরঙ্গের মূল চাবি নিহিত নয় বরং সেই পথ খুজে বের করা যেই পথে ভুলের সম্ভাবনা কম। যেখানে প্রতিটি মূল্যের ধাপেই রয়েছে ছোট সুযোগ, যা আমাদের প্রকৃত তরঙ্গ যে দিকে দিকনির্দেশনা দেয় সে দিকে কিছু লাভ করার সুযোগ করে দেয় । এটিই ইলিয়ট তরঙ্গের কাজ।

২. ইলিয়ট তরঙ্গের লেনদেনকারীরা সাপোর্ট এবং রেসিসটেন্স লাইনের কাছাকাছি প্রবেশ মূল্য খুজে দেখে। তারপর যদি লাইনটি ভেঙ্গে যায় তবে তারা স্বল্প ক্ষতি নিয়ে বের হয়ে যান এবং তরঙ্গের ধাপটি বাতিল করে দেন। যাই হোক, যদি তরঙ্গটি সঠিক হয় তবে এটা ২ অথবা ৫ গুণ বেশী লাভ হয় প্রদত্ত ঝুকির পরিমাণের চেয়ে।

 

সূচনা

ইলিয়ট তরঙ্গের মূল ভিত্তিসমূহ
ইলিয়ট তরঙ্গের ধাপসমূহ
ইলিয়ট তরঙ্গের নিয়মসমূহ
ইলিয়ট তরঙ্গের ইন্ডিকেটর
ইলিয়ট তরঙ্গের – শুরুর পদক্ষেপ
ইলিয়ট তরঙ্গের- ট্রেডিং পরিকল্পনা
ইলিয়ট তরঙ্গ এবং ফিবোনাক্কি
ইলিয়ট তরঙ্গ- ফিবোনাক্কি একসাথে
ইলিয়ট তরঙ্গ এবং বোলিঞ্জার ব্যান্ড